\r\n
অ আ আবীর আকাশ,লক্ষ্মীপুর:
\r\n\r\n
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য লক্ষ্মীপুরের চারটি নির্বাচনী আসন থেকে ৪৬ জন মনোনয়নপত্র দাখিলকারীর মধ্যে ছয়জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। রোববার মনোনয়নপত্র যাছাই-বাচাই শেষে রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল তাদের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন। এছাড়াও তিন প্রার্থীর মনোনয়নপত্রের বিষয়ে সিদ্ধান্ত স্থগিত রাখা হয়েছে।
\r\n\r\n
রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ১৩ জনের মধ্যে ঋণ খেলাপীর দায়ে বর্তমান সাংসদ জাকের পার্টির লায়ন এমএ আউয়াল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহবুবুল আলমের (সাবেক যুবলীগ নেতা); লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর ও সদর আংশিক) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ১২ জনের মধ্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল ফয়েজ ভূঁইয়া (বিএনপি নেতা) ও মাস্টার রুহুল আমিন ভূঁইয়ার (জামায়াত নেতা) মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। বিদ্যুৎ বিল বকেয়া সংক্রান্ত জটিলতায় স্থগিত রাখা হয়েছে এ আসনের বিকল্পধারার প্রার্থী শাহ আলম বাদল ও ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের প্রার্থী মো. হেলাল উদ্দিনের মনোনয়নপত্র।
\r\n\r\n
লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ১১ জনের মধ্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রে ত্রুটি থাকায় জেএসডি প্রার্থী এ্যাডভোকেট সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলালের মনোনয়নপত্র স্থগিত করা হয়।
\r\n\r\n
অপরদিকে, লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি-কমলনগর) আসনে ১০ জন মনোনয়নপত্র দাখিলকারীর মধ্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী দলটির কেন্দ্রীয় শূরা সদস্য মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ ও কেন্দ্রীয় তাঁতী দলের সহসভাপতি আবদুল মতিন চৌধুরীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এদের মধ্যে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় আবদুল মতিন চৌধুরীর এবং কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান হয়েও ওই পদ থেকে পদত্যাগ না করায় মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। 
\r\n\r\n
 
\r\n\r\n" />
সর্বশেষ

লক্ষ্মীপুরে ছয় জনের মনোনয়নপত্র বাতিল

প্রতিনিধি | আপডেট: ১০:৩২, ডিসেম্বর ০২ , ২০১৮

অ আ আবীর আকাশ,লক্ষ্মীপুর:
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য লক্ষ্মীপুরের চারটি নির্বাচনী আসন থেকে ৪৬ জন মনোনয়নপত্র দাখিলকারীর মধ্যে ছয়জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। রোববার মনোনয়নপত্র যাছাই-বাচাই শেষে রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল তাদের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন। এছাড়াও তিন প্রার্থীর মনোনয়নপত্রের বিষয়ে সিদ্ধান্ত স্থগিত রাখা হয়েছে।
রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ১৩ জনের মধ্যে ঋণ খেলাপীর দায়ে বর্তমান সাংসদ জাকের পার্টির লায়ন এমএ আউয়াল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহবুবুল আলমের (সাবেক যুবলীগ নেতা); লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর ও সদর আংশিক) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ১২ জনের মধ্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল ফয়েজ ভূঁইয়া (বিএনপি নেতা) ও মাস্টার রুহুল আমিন ভূঁইয়ার (জামায়াত নেতা) মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। বিদ্যুৎ বিল বকেয়া সংক্রান্ত জটিলতায় স্থগিত রাখা হয়েছে এ আসনের বিকল্পধারার প্রার্থী শাহ আলম বাদল ও ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের প্রার্থী মো. হেলাল উদ্দিনের মনোনয়নপত্র।
লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ১১ জনের মধ্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রে ত্রুটি থাকায় জেএসডি প্রার্থী এ্যাডভোকেট সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলালের মনোনয়নপত্র স্থগিত করা হয়।
অপরদিকে, লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি-কমলনগর) আসনে ১০ জন মনোনয়নপত্র দাখিলকারীর মধ্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী দলটির কেন্দ্রীয় শূরা সদস্য মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ ও কেন্দ্রীয় তাঁতী দলের সহসভাপতি আবদুল মতিন চৌধুরীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এদের মধ্যে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় আবদুল মতিন চৌধুরীর এবং কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান হয়েও ওই পদ থেকে পদত্যাগ না করায় মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। 
 

পাঠকের মন্তব্য
লগইন করুন
লগইন মনে রাখুন