সর্বশেষ

ভারতে ঘূর্ণিঝড় পেথাই’র আঘাতে নিহত ১, এগুচ্ছে বাংলাদেশের দিকে

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে আঘাত হেনেছে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় পেথাই। রাজ্যের বিজয়াওয়াদায় ভূমিধ্বসে নিহত হয়েছে একজন। ঝড়টি এখন অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে উত্তর-পূর্ব দিক অর্থাৎ বাংলাদেশের দিকে অগ্রসর হচ্ছে বলে জানিয়েছে অন্ধ্রের আবহাওয়া বিভাগ। খবর এনডিটিভির। স্থানীয় আবহাওয়া অফিস জানায়, সোমবার দুপুরে.....

সাভার ও ধামরাইয়ে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় মা-মেয়েসহ তিনজন নিহত

সাভার ও ধামরাইয়ে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় মা-মেয়েসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২০ জন। সোমবার দুপুরে.....

ব্যাটিং বিপর্যয়ে ভারত, হারের শঙ্কায় পার্থ টেস্ট

পার্থ টেস্টে ভারতকে ২৮৭ রানের লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। জয়ের আশায় ব্যাট করতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে সফরকারী.....

জাপানের রেস্তোরাঁয় বিস্ফোরণে আহত ৪২

জাপানের উত্তরাঞ্চলে একটি রেস্তোরাঁয় রোববার রাতে শক্তিশালী বিস্ফোরণে ৪২ জন আহত হয়েছেন। এতে পার্শ্ববর্তী কয়েকটি ভবন ধসে পড়ে। পরে.....

সৌদিতে অস্ত্র রফতানি বন্ধের পরিকল্পনা কানাডার

সৌদি আরবে অস্ত্র রফতানি করা থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। রোববার এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে.....

নিজের সংসারে অসুস্থ বড় বোন বোঝা, তাই স্ত্রীকে খুশি করতে বোনকে পিটিয়ে হত্যা

নিজের সংসারে অসুস্থ বড় বোন বোঝা। তাই স্ত্রীকে খুশি করতে বোনকে পিটিয়ে হত্যা করল ছোট ভাই ও তার স্ত্রী। সোমবার দুপুরে নিহতের মরদেহ.....

ভারতের অন্ধ্র উপকূলের দিকে এগোচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ফেদাই

আন্দামান সাগরের নিম্নচাপ থেকে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড় ফেদাই বঙ্গোপসাগরে প্রবল ঘূর্ণিঝড় থেকে দুর্বল হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে। এটি.....

প্রেমে প্রতারিত হয়ে কাঁদছেন নেহা কাক্কার

ভেঙ্গে গেছে প্রকাশ করার অল্প দিনের মধ্যেই। আর প্রেম হারিয়ে কাঁদছেন নেহা। আর দশটা সাধারণ মানুষের মতোই যে তারকাদের অনুভূতি সেটাই.....

ইলিশ বল তৈরির রেসিপি

ইলিশ মাছ দিয়ে তৈরি করা যায় অনেকরকম মজার খাবার। তেমনই একটি পদ হলো ইলিশ বল। সাধারণত আমরা যেভাবে ফিশবল তৈরি করি এটি অনেকটা সেভাবেই করতে.....

ভারতের দিকে অগ্রসর হচ্ছে ফেতাই, উপকূলে বাড়তি সতর্কতা

ভারতের দিকে অগ্রসর হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ফেতাই। স্থানীয় সময় বিকাল থেকে সন্ধ্যার মধ্যেই অন্ধ্র প্রদেশের কাঁকিনাড়ার কাছে আছড়ে পড়বে.....

টাঙ্গাইলে মাহিন্দ্র- বাস সংঘর্ষে নিহত তিন : আহত ৪ জন

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে মাহিন্দ্র-বাস মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় চারজন আহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে.....

  • সর্বশেষ
  • সর্বশেষ পঠিত

অবশেষে রানার বিরুদ্ধে আদালতে দুদকের চার্জশিট দাখিল

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

বাধা দিলে পাল্টা জবাব- খালেদা

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

'নক্ষত্র'-এ ই-শপিং

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

বিশ্বের শীর্ষ এক হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে নেই ঢাবি

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

জাতীয়

ভারতের অন্ধ্র উপকূলের দিকে এগোচ্ছে...

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ১২:১২, ডিসেম্বর ১৭ , ২০১৮

আন্দামান সাগরের নিম্নচাপ থেকে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড় ফেদাই বঙ্গোপসাগরে প্রবল ঘূর্ণিঝড় থেকে দুর্বল হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে। এটি বর্তমানে পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। ধীরে ধীরে ভারতের অন্ধ্র উপকূলের দিকে এগোচ্ছে। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের বিশেষ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আজ সকাল ৯ টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে সিনপটিক অবস্থা সম্পর্কে বলা হয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘ফেদাই’ সকাল ৬ টায় ১৪.৮ ডিগ্রী উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮২.০ ডিগ্রী দ্রাঘিমাংশে কেন্দ্রভূত ছিল। এটি আরও উত্তর- উত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে আজ বিকেল নাগাদ (কাকিনাদার নিকট দিয়ে) ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

এছাড়া ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাগর উত্তাল থাকায় দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোকে ২ নম্বর হুশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

 

জানা গেছে, প্রবল ঘূর্ণিঝড় থেকে ফেদাই ঘূর্ণিঝড়ের কাতারে নেমে আসতে পারে। তখনও বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ থাকতে পারে ঘণ্টায় ৭০ থেকে ৯০ কিলোমিটার। যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত বেড়ে যেতে পারে।

অর্থনীতি

৩০-৩১ ডিসেম্বরে বিমানের টিকিট ‘সোনার...

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন ও তার পরের দিন অর্থাৎ ৩১ ডিসেম্বর বছরের শেষ দিনে এয়ারলাইন্সের অভ্যন্তরীন রুটে কোনো সিট পাওয়া যাচ্ছে না। উল্লেখিত দু’দিন বাংলাদেশ থেকে বিদেশি রুটগুলোতেও একই অবস্থা। বেশিরভাগ দেশি বা বিদেশি এয়ারলাইন্সের সিট খুব বেশি খালি নেই বলে জানিয়েছেন অভ্যন্তরীন ও আন্তর্জাতিক রুটে চলা একাধিক এয়ারলাইন্সের কর্মকর্তারা। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মার্কেটিং অ্যান্ড সেলস বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক আশরাফুল আলম জাগো নিউজকে বলেন, প্রতি বছর ডিসেম্বর মাসে টিকিটের সঙ্কট থাকে। কারণ এ মাসে বাচ্চাদের ছুটি থাকায় অনেকে বেড়াতে যান দূরে কোথাও। তাই আগেই টিকিট কেটে রাখেন সবাই। যে কারণে পুরো ডিসেম্বরে টিকিটের সঙ্কট থাকে। তিনি বলেন, এ বছরের জাতীয় নির্বাচন এ মাসে নতুন মাত্রা যোগ করেছে। নির্বাচনের মাসে বিমানে যাত্রী চাহিদা বেড়েছে। ৩০ ও ৩১ ডিসেম্বর সিট সঙ্কটের কারণ হয়তো ‘থার্টিফার্স্ট’। আবার অনেকে ভোট দিয়ে বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে রেখেছেন আগে থেকেই। এয়ারলাইন্স সূত্র জানায়, ইকোনমি ক্লাসের টিকিট মোটামুটি শেষ। তবে বিজনেস ক্লাসের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। তবে ইকোনমি বা বিজনেস ক্লাসের কিছু টিকিট মিললেও তা কিনতে গেলে উচ্চমূল্য পরিশোধ করতে হচ্ছে। তবে এ দুই তারিখে দেশের বাইরে থেকে আসতে টিকিটের উচ্চমূল্য পরিশোধ করতে হচ্ছে না। এ বিষয়ে বেসরকারি এয়ারলাইন্স নভোএয়ারের মুখপাত্র নিলাদ্রী মহারত্ব বলেন, কেবল ডিসেম্বরের উক্ত দুইদিন এয়ারলাইন্সের টিকিট সঙ্কট- বিষয়টা এমন নয়, ডিসেম্বর-জানুয়ারি দু’মাসই চলছে আসন সঙ্কট। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ইংরেজি নববর্ষ বরণ করতে আগে থাইল্যান্ড বা আশপাশের কয়েকটি দেশের টিকিট নিয়ে কাড়াকাড়ি হতো। এবার পরিস্থিতি কিছুটা বদলে গেছে। উন্নত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যেতে সহজে টিকিট মিলছে না। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী বিমান সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ছাড়াও রিজেন্ট এয়ারওয়েজ, নভো এয়ার, ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স, এমিরেটস, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, কাতার, কুয়েত, তার্কিশ, এয়ার এরাবিয়া, এয়ার এশিয়া, ফ্লাই দুবাই ও ইতিহাদের বিভিন্ন রুটে ৩০ ও ৩১শে ডিসেম্বরের টিকিট বিক্রি প্রায় শেষ। ইতিহাদ, কাতার ও এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে টিকিট খুঁজে দেখা যায়, ৩০ ডিসেম্বর রাতের টিকিটের মূল্য সবচেয়ে বেশি। এ ছাড়া ৩১শে ডিসেম্বর সারা দিনের টিকিটের মূল্যও অনেক বেশি। এসব তারিখে কানাডা, যুক্তরাজ্য বা যুক্তরাষ্ট্রে ইকোনমি ক্লাসে ওয়ানওয়ে ভাড়া পড়ছে লাখ টাকার ওপরে। এমিরেটস এয়ারলাইন্সে সবচেয়ে ভাড়া বেশি। এসকে এয়ার ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল এজেন্টের স্বত্বাধিকারী কবির হোসেন জানান, অনেকে টিকিট কেনেননি, তবে খোঁজ-খবর রাখছেন। কথা বলে রেখেছেন ২৫ ডিসেম্বর বা তারও পরে টিকিট কাটবেন। তাই টিকিট সঙ্কট আরও বাড়তে পারে।

রাজনীতি

দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে উন্ননের ...

প্রতিনিধি | আপডেট: ১৩:৫১, ডিসেম্বর ১৭ , ২০১৮



আরিফুজ্জামান আরিফ।। যশোর-১ আসন শার্শার আওয়ামীলীগের মনোনিত মহাজোটের প্রার্থী সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শেখ আফিল উদ্দিন বলেছেন,
জননেত্রী শেখ হাসিনা নিরলস ভাবে কাজ করে দেশের উন্নয়ন করেছে বলেই দেশের এতো পরিবর্তন হয়েছে।বিশ্বে দেশের মর্যদা বৃদ্ধি পেয়েছে।দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের সর্বত্র আজ উন্নয়নের ছোয়া বিরাজমান। বিশ্বের দরবারে শেখ হাসিনার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল।তাই এই উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে স্বাধীনতার প্রতীক নৌকার বিজয়ের কোন বিকল্প নেই। 

তিনি  আরও বলেন,জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বধীন আওয়ামী লীগ সরকার দেশের উন্নয়ন ও শান্তি  চাই।এই উন্নয়ন ও শান্তি কেউ ব্যাহত করতে চাইলে ৩০ ডিসেম্বর বিজয়ের প্রতিক নৌকায় ভোট দিয়ে ব্যালেটের মাধ্যমে প্রতিহত করুন।


সোমবার দিনভর শার্শার বাগআঁচড়া ইউনিয়নে গনসংযোগ ও নির্বাচনী সভায় প্রধান অথিতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল কালামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইলিয়াছ কবির বকুলের সার্বিক ব্যবস্থপনায় এ সময় অন্যন্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামান, জেলা পরিষদ সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া ফেরদৌস, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ইয়াকুব হোসেন বিশ্বাস, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডাঃ সাধন কুমার, যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক সাখায়াত হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা ডাঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, আসাদুল ইসলাম মেম্বর, ইউনুস আলী, আল-আমিন, ইদ্রিস আলী সর্দার, মোজাম মেম্বর, আব্দুর সালাম, খতিব ধাবক, আবুল কালাম, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হাসান তুতুল, যুবলীগ নেতা মহিদুল ইসলাম, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি অহিদ হাসান, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আহসান হাবিব পল্টু ও সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান অপু।
 

সারাদেশ

কার্পাসডাঙ্গা বাঘাডাঙ্গায় আ:লীগ...


মেহেদী হাসান মিলন:চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের বাঘাডাঙ্গা গ্রামে গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে  আ:লীগ নেতা  সহিদুল হক (ছোটআব্বা),সাধন মন্ডল,কিতাব মন্ডল,মদন মন্ডল,কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাংবাদিক মেহেদী হাসান মিলনের নেতৃত্বে চুয়াডাঙ্গা জেলা আ:লীগের সহ-সভাপতি চুয়াডাঙ্গা ০২ আসনে ২ বারের নির্বাচিত এমপি আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে  মহাজোটের প্রার্থী হাজী আলী আজগর টগর এমপির পক্ষে নৌকা প্রতিকে ভোট চেয়ে প্রচার পত্র বিলি করা হয়।এ সময় নেতৃবৃন্দ সকলের কাছে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের ব্যাপক দৃশ্যমান উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে আবারো জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠন করতে হাজী আলী আজগর টগর এমপির নৌকা প্রতিকে ভোট চান।এসময় উপস্থিত ছিলেন ফজলুল হক,আয়ুব আলী,নায়েব আলী,লোটন মন্ডল,সুন্নত মন্ডল,,আগাপিত মন্ডল,আলম মন্ডল,মতি মন্ডল,ফারুক ইয়ানবী,রবিন মন্ডল,কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা  সাক্ষর মন্ডল,মিলটন হক,সূর্য মল্লিক,সাগর মন্ডল,রঞ্জিত মন্ডল,জ্যাকসন মন্ডল,সাদ্দাম আলী,শাহীন আলী,ডেবিট মন্ডল প্রমুখ।অপরদিকে কার্পাসডাঙ্গা কোমরপুরে 
> স্বাক্ষর মন্ডল,জ্যাকসন মন্ডল,শাহীন আলী,সামাদ আলী,সূর্য মল্লিক,রনজিত মন্ডল,বাঁধন মন্ডল,হৃদয় মন্ডল,রতন মন্ডল প্রমুখ।

খেলাধুলা

ব্যাটিং বিপর্যয়ে ভারত, হারের শঙ্কায়...

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ১২:৫৭, ডিসেম্বর ১৭ , ২০১৮

পার্থ টেস্টে ভারতকে ২৮৭ রানের লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। জয়ের আশায় ব্যাট করতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে সফরকারী ভারত। এখন টিম ইন্ডিয়ার শঙ্কা পার্থ টেস্ট হারার। ইঙ্গিত তৃতীয় দিনেই মিলেছিল। চতুর্থ দিনের শেষে কার্যত নিশ্চিত হয়ে গেল। অবধারিত ফলাফলের দিকে এগোচ্ছে পার্থ টেস্ট। বড় কোনো মিরাকল না হলে পার্থ টেস্টে হারের মুখই দেখতে হবে বিরাট কোহলিদের। এদিকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চার দশক পর আবার সফরকারী ভারতের সামনে এসেছে টানা দুই ম্যাচ জেতার রেকর্ড, তাও কি-না সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচ জেতার সুযোগ। প্রায় চল্লিশ বছর আগে ১৯৭৭-৭৮ মৌসুমে প্রথম ও শেষবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টানা দুইটি টেস্ট জিতেছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। কিন্তু সে দুটি ম্যাচ ছিলো সিরিজের তৃতীয় ও চতুর্থ ম্যাচ। নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসের অনন্য এ রেকর্ড গড়তে বিরাট কোহলির দলের প্রয়োজন ২৮৭ রান। প্রথম ইনিংসে অধিনায়ক বিরাটের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি বা দ্বিতীয় ইনিংসে সামির অনবদ্য স্পেল কোনোটাই কাজে লাগবে না ভারতের। এর আগে অ্যাডিলেট টেস্ট জিতে ইতোমধ্যে সফরকারী ভারত সিরিজে এগিয়ে রয়েছে। তৃতীয় দিনের শেষে ভারতের চেয়ে ১৭৫ রানে এগিয়ে ছিল অস্ট্রেলিয়া, হাতে ছিল ৬টি উইকেট। তাই চতুর্থ দিন অর্থাৎ, আজ ভারতীয় বোলারদের প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল যত কম রানের মধ্যে সম্ভব অস্ট্রেলিয়াকে অলআউট করা। সামির দুর্দান্ত স্পেলে ভর করে সেই লক্ষ্যে কিছুটা হলেও সফল হয় ভারত। অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয় ২৪৩ রানে। অজিদের তরফে উসমান খোয়াজা ৭২ রান করেন, অধিনায়ক পেইন করেন ৩৭ রান। ক্যারিয়ারের সেরা বোলিং স্পেল উপহার দেন সামি। মাত্র ৫৬ রানের বিনিময়ে ৬ টি উইকেট দখল করেন টিম ইন্ডিয়ার এই পেসার। ভারতের সামনে ২৮৭ রানের লক্ষ্যমাত্রা রাখে অস্ট্রেলিয়া। পার্থের মতো পিচে চতুর্থ ইনিংসে ২৮৭ রানের লক্ষ্যমাত্রা যথেষ্ট কঠিন বলেই মনে করছিলেন বিশেষজ্ঞরা। এই ম্যাচ জিততে হলে বিরাট কোহলি এবং পূজারা দু’জনকেই ভাল খেলতে হত। কিন্তু তেমনটা আর হল না পার্থে। লড়াই করেও ব্যর্থ হলেন ভারতীয় টেস্ট দলের সেরা দুই ব্যাটসম্যান। কার্যত ব্যাটিং বিপর্যয়ের সম্মুখীন হতে হল টিম ইন্ডিয়াকে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ভারতের স্কোর ৫ উইকেটে ১১২ রান। হনুমা বিহারী ২৪ রান এবং ঋষভ পন্থ ৯ রানে অপরাজিত আছেন। জয়ের জন্য ভারতের প্রয়োজন এখনও ১৭৫ রান। ভারতের জন্য খারাপ খবর রয়েছে আরও। চোটের জন্য গোটা সফর থেকেই ছিটকে গিয়েছেন পৃথ্বী শ।

বিনোদন

প্রেমে প্রতারিত হয়ে কাঁদছেন নেহা কাক্কার

ভেঙ্গে গেছে প্রকাশ করার অল্প দিনের মধ্যেই। আর প্রেম হারিয়ে কাঁদছেন নেহা। আর দশটা সাধারণ মানুষের মতোই যে তারকাদের অনুভূতি সেটাই যেন বুঝিয়ে দিচ্ছেন তিনি। একের পর এক পোস্ট করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সেখানে প্রকাশ পাচ্ছে তার হাহাকার ও বেদনা। হিমাংশ কোহলি এবং নেহা কাক্কারের প্রেম বলিউডে বহুল আলোচিত। অনেকদিন ধরেই একে অপরকে ডেট করতেন তারা। প্রথমদিকে বিষয়টা লুকিয়ে রাখলেও পরে একটি গানের রিয়েলিটি শোতে এসে স্বীকার করেন দু’জনে। রিলেশনশিপের ব্যাপারে জনসমক্ষে জানানোর পরেই নাকি নজর লেগে গিয়েছে। এমনটাই দাবি নেহার। সদ্য ব্রেক আপ হয়েছে নেহা-হিমাংশের। তবে সেটা মিউচ্যুয়াল ব্রেক আপ নয়। হিমাংশ নাকি প্রতারণা করেই নিজেকে সরিয়ে নিয়েছে সম্পর্ক থেকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক স্ট্যাটাসে হিমাংশকেই দোষারোপ করে যাচ্ছেন নেহা। তার দাবি, হিমাংশ তার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। অন্যদিকে ব্রেক আপের বিষয় মুখে কুলুপ এঁটেছেন হিমাংশ। তিনি এখনও পর্যন্ত কোনো কথাই বলছেন না। নেহা স্ট্যাটাসে লিখেছেন, তিনি তার সবটুকু দিয়ে সম্পর্কটা ধরে রাখার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু কোনও মানুষ যে এতটাও নির্মম হতে পারে তা তার জানা ছিল না। তিনি এর আগেও অনেক সহ্য করেছেন৷ আজও করতে হবে। তিনি আরও লিখেছেন, ‘সেলেব্রিটিদের দুটো চেহারা হয়। একটা পেশাগত একটা ব্যক্তিগত। ব্যক্তিগত জীবনে যাই হয়ে যাক না কেন পেশাগত জীবনে ঢুকে পড়লেই মুখে একটা হাসি নিয়ে রাখতেই হবে। কিন্তু আমিও তো মানুষ আমারও তো অনুভূতি রয়েছে। আমার কান্না আমি লুকাতে পারছি না।’ এদিকে শোনা যাচ্ছে, নেহার প্রেমিক হিমাংশ নাকি শচীন টেন্ডুলকারের মেয়ে সারার প্রেমে মজেছেন। ভারতের জনপ্রিয় টিভি অভিনেতা হিমাংশ বেশ কিছুদিন ধরেই ডেটিংয়ে যাচ্ছেন সারাকে নিয়ে।

আন্তর্জাতিক

ভারতে ঘূর্ণিঝড় পেথাই’র আঘাতে নিহত ১,...

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ১৩:৫৯, ডিসেম্বর ১৭ , ২০১৮

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে আঘাত হেনেছে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় পেথাই। রাজ্যের বিজয়াওয়াদায় ভূমিধ্বসে নিহত হয়েছে একজন। ঝড়টি এখন অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে উত্তর-পূর্ব দিক অর্থাৎ বাংলাদেশের দিকে অগ্রসর হচ্ছে বলে জানিয়েছে অন্ধ্রের আবহাওয়া বিভাগ। খবর এনডিটিভির।

স্থানীয় আবহাওয়া অফিস জানায়, সোমবার দুপুরে ঘূর্ণিঝড়টি অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবাড়ি জেলায় আঘাত হানে। ঝড়ের ফলে ভারিবর্ষণ ও ভূমিধ্বস হয়েছে জেলার বিভিন্ন স্থানে। রাজ্যজুড়ে স্কুল কলেজ বন্ধ রাখা হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশার চার জেলাতেও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে অন্ধ্র উপকূলে আছড়ে পড়ার পর ঘূর্ণিঝড়টি উত্তর পূর্বে দিকে এগুচ্ছে। এই পরিস্থিতি কারণে বৃষ্টি হচ্ছে বলে মনে করছেন অন্ধ্রপ্রদেশের আবহাওয়া কর্মকর্তারা।

আরও পড়ুনঃ ড. কামাল হোসেনের ওপর হামলার অভিযোগে মামলা

পশ্চিমবঙ্গের আলিপুর আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে রাজ্যের একাধিক জেলায় বৃষ্টি হচ্ছে। পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর এবং দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা, ঝাড়গ্রাম ও বাঁকুড়ায় টানা বর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। একই অবস্থা নদিয়া, মুর্শিদাবাদ এবং বীরভূম জেলাতেও। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত পরিস্থিতি একই রকম থাকবে।

কয়েক দিন আগে বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ সৃষ্টি হয়। ক্রমশ শক্তি বৃদ্ধি করে নিম্নচাপ থেকে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয় এটি। এরপর হয়ে ওঠে ঘূর্ণিঝড় ‘পেথাই’।

শিক্ষা

অরিত্রীর আত্মহত্যার মামলায় শ্রেণি...

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ০১:৫৮, ডিসেম্বর ০৬ , ২০১৮

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় তার শ্রেণি শিক্ষিকা হাসনা হেনাকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। বুধবার দিনগত রাতে রাজধানীর উত্তরার একটি আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ ব্যাপারে ডিবির (পূর্ব) সহকারী কমিশনার (এসি) আতিকুল ইসলাম জানান, অরিত্রী আত্মহত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় শ্রেণি শিক্ষিকা হেনাকে গ্রেফতার করে ডিবি কার্যালয়ে নেওয়া হয়েছে। এর আগে সোমবার দুপুরের দিকে রাজধানীর শান্তিনগরে গলায় ফাঁস দিয়ে ভিকারুননিসা নূন স্কুলের ছাত্রী অরিত্রী আত্মহত্যা করে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর পল্টন থানায় ‘আত্মহত্যার প্ররোচনাকারী’ হিসেবে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন অরিত্রীর বাবা। মামলার আসামিরা হলেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, প্রভাতী শাখার প্রধান জিনাত আক্তার ও শ্রেণি শিক্ষিকা হাসনা হেনা। পরে বুধবার মামলাটি ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

স্বাস্থ্য

ইলিশ বল তৈরির রেসিপি

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ০১:০৩, সেপ্টেম্বর ১৭ , ২০১৮

ইলিশ মাছ দিয়ে তৈরি করা যায় অনেকরকম মজার খাবার। তেমনই একটি পদ হলো ইলিশ বল। সাধারণত আমরা যেভাবে ফিশবল তৈরি করি এটি অনেকটা সেভাবেই করতে হয়। চলুন তবে জেনে নেই ইলিশ বল তৈরির রেসিপি- আরও পড়ুন: চ্যাপা শুঁটকি ভুনা করার রেসিপি উপকরণ: ইলিশ মাছ ৬ টুকরা, সয়াসস ২ টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণমতো, আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা আধা চা-চামচ। সব উপকরণ দিয়ে মাছ সেদ্ধ করে কাঁটা বেছে নিতে হবে। সেদ্ধ ডিম ২টা, গাজর কুচি সিকি কাপ, আলু কুচি আধা কাপ, বরবটি কুচি সিকি কাপ, গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, মাখন ৫০ গ্রাম, জিরার গুঁড়া ১ চা-চামচ, ডিম ২টা, ব্রেডক্রাম প্রয়োজনমতো, তেল (ভাজার জন্য) প্রয়োজনমতো, ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ। আরও পড়ুন: ইলিশ মাছের ভর্তা তৈরির রেসিপি প্রণালি: সেদ্ধ ডিম দুটি মিহি কুচি করে নিতে হবে। সবজিগুলো অল্প লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। ডিম ও ব্রেডক্রাম ছাড়া সব উপকরণ একসঙ্গে মাখাতে হবে। এবার বলের মতো বানিয়ে ডিমে চুবিয়ে ক্রামে গড়িয়ে ডুবো তেলে ভাজতে হবে। গরম গরম সসের সঙ্গে পরিবেশন।

আইটি টেক

১৩ বছর বয়সেই সফটওয়্যার কোম্পানির মালিক

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ০৬:০২, ডিসেম্বর ১৭ , ২০১৮

৯ বছর বয়সেই একটা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে বাড়ির সবাইকে চমকে দিয়েছিল সে। এখন তার বয়স ১৩। আর চমকানোর পরিধিটাও বাড়তে বাড়তে দেশের বাইরে বিদেশেও বিস্তৃত হতে শুরু করেছে। এত অল্প বয়সেই দুবাইয়ে একটি সফটওয়্যার কোম্পানি খুলেছে ভারতের কেরালা রাজ্যের আদিত্যন রাজেশ। পাঁচ বছর বয়স থেকেই কম্পিউটারের প্রতি তীব্র ঝোঁক ছিল রাজেশের। স্কুল থেকে বাড়িতে পা রাখতে না রাখতেই কখনও মোবাইল, কখনও আবার কম্পিউটার নিয়ে খুটখাট করত সে। আর তার জন্য প্রতিদিন বাড়ির লোকজনের কাছে বকাঝকাও খেতে হতো। কিন্তু এই বকাঝকার মধ্যেই দিন দিন নিজের প্রযুক্তি প্রীতিটা অন্য জায়গায় নিয়ে যাচ্ছিল সে। তারই মধ্যে হুট করে এক দিন আদিত্যনের হাত দিয়ে বেরিয়ে আসে একটা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন। বহু মানুষের মনে ধরে যায় ছোট্ট ছেলেটার তৈরি করা ওই অ্যাপ্লিকেশন। সেই থেকে শুরু। তখন থেকেই আদিত্যনের জন্য আসতে শুরু করে দেয় এক এক করে কাজের প্রস্তাব। বেশ কিছু সফটওয়্যার কোম্পানির জন্যও লোগো ডিজাইনিং করতে শুরু করে দেয় আদিত্যন। শুধু তাই নয়, সে সময়ে তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো ওয়েবসাইটও তৈরি করতে শুরু করে দিয়েছিল ৯ বছরের আদিত্যন রাজেশ। কেরালার থিরুভিল্লাতে জন্ম আদিত্যনের। তার বয়স যখন পাঁচ বছর তখনই তার পরিবার দুবাইতে চলে আসে। তবে আদিত্যনকে ওয়েবসাইটের সঙ্গে প্রথম পরিচয়টা করিয়ে দিয়েছিলেন তার বাবাই। আদিত্যন জানায়, তার বাবা প্রথমে যে ওয়েবসাইটের সঙ্গে পরিচয় করিয়েছিলেন সেটার নাম বিবিসি টাইপিং। এই ওয়েবসাইট থেকেই ছোটরা টাইপিংয়ের খুঁটিনাটি সম্পর্কে জানতে পারে। মোট তিনজনকে নিয়ে চলে আদিত্যনের কোম্পানি। আর তারা প্রত্যেকেই আদিত্যনের স্কুলের বন্ধু। তবে আদিত্যন এখন দিন গুনছে, কবে তার বয়স ১৮ হবে। আদিত্যনের জানিয়েছে, তার বয়স ১৮ বছর হলেই সে প্রতিষ্ঠিত একটি কোম্পানির মালিক হতে পারবে। ১২ জনেরও বেশি ক্লায়েন্ট রয়েছে তাদের। কোডিং সার্ভিস থেকে ডিজাইন সবই তারা ক্লাইন্টদের জন্য বিনামূল্যে করে থাকে।

সাহিত্য

বাংলাটিভি৭১ এর সাহিত্য কথা অনুষ্ঠানে...

প্রতিনিধি | আপডেট: ১২:২৪, ডিসেম্বর ১১ , ২০১৮

রাবেয়া বেগম সূবর্না : বাংলাটিভি৭১ এর সাহিত্য কথা অনুষ্ঠানে কথা বলছেন বিশিষ্ট সাংবাদিক মোঃ সরওয়ার হোসাইন ও বিশিষ্ট কথা সাহিত্যিক বজলার রহমান রাজা।উপস্থাপনায়-লায়ন সালাম মাহমুদ । চিত্রগ্রহনে -মোঃ ইমরান নাজির।

ফিচার

যে গ্রামে নেই থানা, কোনো বাড়িতে নেই দরজা

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ০৩:২৯, ডিসেম্বর ১৬ , ২০১৮

ভারতের মুম্বাইয়ের মহারাষ্ট্রের প্রত্যন্ত একটি গ্রাম। আহমেদনগর থেকে ৩৫ কিমি দূরের সেই গ্রামের ‌নাম শনি শিঙ্গনাপুর। বসবাস করেন প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ। মূলত আখ চাষিদের বাস এই গ্রামে। আর দীর্ঘদিন ধরেই অদ্ভুত এক কারণে খবরের শিরোনামে রয়েছে শনি শিঙ্গনাপুর। কারণ শুনলে যে কেউ অবাক হতে বাধ্য। জানা গেছে, এই গ্রামের বাড়িগুলিতে আসলে কোনো দরজা নেই। সবসময় খোলা থাকে বাড়ি। খোলা ঘরেই যেখানে সেখানে পড়ে থাকে টাকা-পয়সা, গহণা। চুরি হয় না। চুরি করবে কে? চোরই যে নেই সেই গ্রামে। তাই থানাও নেই। শুধু বাড়ি নয়, দোকান, বাজার, ব্যাংকের দরজাতেও তালা পড়ে না। আর এর কারণও অদ্ভুত। গ্রামের মানুষ মনে করে করেন, এই গ্রামের রক্ষাকর্তা শনি দেবতা। তিনি অলক্ষ্যে সবার ঘর, সম্পদ রক্ষা করেন। সকলেরই অগাধ বিশ্বাস শনি দেবতার উপরে। আর সেই বিশ্বাসের জেরে ভারতের একমাত্র এই গ্রামেই রয়েছে ইউকো ব্যাংকের শাখা, যার কোনো দরজায় তালা লাগানোর ব্যবস্থা নেই। এমনকি এই গ্রামের মানুষেরা বলেন, তাদের পূর্বপুরুষেরা তাদের বলে গেছেন দরজায় যেন পাল্লা না লাগানো হয়। সেই নির্দেশ এখনও তারা মেনে চলেন এবং এর জেরে কোন বিপদও হয় না। প্রায় ৩০০ বছর ধরে এই নীতি চলছে মহারাষ্ট্রের এই গ্রামে। তবে নামে গ্রাম হলেও এখন রীতিমতো শহর এই শনি শিঙ্গনাপুর।

বিশ্বকাপ জয়ের উত্সবে বর্ণিল বার্লিন নগর
মিরোস্লাভ ক্লোসার হাতে মাইক্রোফোন। তাঁর নেতৃত্বে আনন্দ-সংগীত পরিবেশনরত অন্য জার্মান ফুটবলাররা।
রকমারি

প্রভুর জন্য অপেক্ষায় হাসপাতালের দরজায় ৪...

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ০৫:৫৫, ডিসেম্বর ১৭ , ২০১৮

কুকুর কখনও বিশ্বাসঘাতকতা করে না। এমনকী বিপদের মুহূর্তে কখনও ছেড়ে চলে যায় না- এমন কথা প্রায়ই শোনা যায়। এবার তা আরও একবার প্রমাণ হল ব্রাজিলের একটি ঘটনায়। সান্তা ক্যাটারিনার হসপিটাল রিজিওন্যাল অল্টো ভ্যালেতে ভীষণ অসুস্থতা নিয়ে ভর্তি হন সিজার নামে এক তরুণ। দেখার কেউ নেই। তবে, ওই তরুণের ভর্তির সময় হাসপাতালের দরজার সামনে দাঁড়িয়েছিল ৪টি কুকুর। ওই হাসপাতালের নার্স ক্রিস ম্যামপ্রিম ফেসবুকে জানিয়েছেন, রাত যখন ৪টা, ওই জায়গা থেকে এক চুলও সরেনি কুকুরগুলো। তাদের প্রত্যেকের মুখ বিষন্ন। ফ্যালফ্যাল দৃষ্টিতে তাকিয়ে রয়েছে তারা। কুকুরদের এমন শিষ্ঠাচার দেখে অবাক হয়েছেন হাসাপতালের কর্মীরাও। ওই কুকুরগুলোর সঙ্গে সিজারের কী সম্পর্ক? আসলে ভবঘুরে সিজারের জীবন কাটে ফুটপাথেই। খাবার জুটলে পেট ভরে আর না হয় ক্ষুধা নিয়েই পড়ে থাকতে হয়। কিন্তু যে দিন খাবার জোটে, তার প্রথম ভাগ যায় ওই কুকুরদের জন্য। সুখে-দুঃখে সবসময়ের সঙ্গী ওই কুকুরগুলো। সিজার যখন অসুস্থ হয়ে পড়ে, কুকুরদের তত্পরতায় নাকি পথচারীরা হাসপাতালে ভর্তি করে দেয় তাঁকে। নার্স ক্রিসে জানিয়েছেন, ভোরে কিছুটা সুস্থ হন সিজার। এরপর তাঁর কাছে কুকুরগুলোকে যেতে অনুমতি দেওয়া হয়। তিনি আরো বলেন, ওই কুকুরদের ভদ্রতা দেখে অবাক হয়েছেন সবাই। যতক্ষণ না তাদের ভেতরে ঢুকতে অনুমতি দেওয়া হয়েছে, ‘বন্ধুর’ অপেক্ষায় বাইরে চুপটি করে বসেছিল তারা। পরে, হাসপাতল কর্তৃপক্ষ থেকে সিজার এবং ৪ কুকুরকে খাবার দেওয়া হয়। সূত্র: স্টোরি পিক ডটকম।